ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন
প্রচারণায় গিয়ে শ্লীলতাহানি, নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল
ডেস্ক রিপোর্ট ::

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার আওনা ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. হুমায়ুন কবীরের নারী কর্মীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে উঠেছে নৌকার সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার (২২ ডিসেম্বর) বিকেলে নৌকার প্রার্থী বেল্লাল হোসেনের বিচারের দাবিতে ঝাড়ু মিছিল করেছেন বিদ্রোহী প্রার্থীর নারী কর্মী-সমর্থকরা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দুপুরে আওনা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হুমায়ুন কবীরের পক্ষে ঘোড়া প্রতীকে ভোট চাইতে ২০-২৫ জন নারী কর্মী-সমর্থক তরণিআটা গ্রামে যান। এ সময় তারা নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের হামলার শিকার হন। হামলাকারীরা তাদের পরনের কাপড় টেনে ছিঁড়ে দেয়, ওড়না ছিনিয়ে নেয়। এছাড়া কয়েকজন নারীকে মারধর করে।

এর প্রতিবাদে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নারী কর্মী-সমর্থকরা বুধবার বিকেলে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে পঞ্চাশী এলাকার প্রধান সড়কে ঝাড়ু মিছিল বের করেন।

ঘোড়া প্রতীকের নারী কর্মী ইতি বেগম বলেন, আমরা ভোট চাইতে গেলে একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা চালায়। তারা কয়েকজন নারীর পরনের কাপড় ছিঁড়ে ফেলে ও ওড়না ছিনিয়ে নেয়। এছাড়া আমার এক বছর বয়সী শিশুকে কোল থেকে ছিনিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।

আরেক কর্মী সেলিনা বেগম অভিযোগ করেন বলেন, প্রথমে ভোট চাইতে বাধা দেওয়া হয়। একপর্যায়ে কয়েকজনকে মারধর করে ঘোড়া প্রতীকের পোস্টারগুলো ছিনিয়ে নিয়ে যায় এবং লাঞ্ছিত করা হয়।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হুমায়ুন কবীর বলেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বেল্লাল হোসেনের কর্মী সমর্থকরা শুরু থেকেই আমার প্রচারণায় বাধা ও হুমকি দিয়ে আসছে। কর্মী-সমর্থকদের মাঠে নামতে দেওয়া হচ্ছে না। নির্বাচনী কার্যালয় দখল করে নিয়েছে এবং পোস্টার পুড়িয়ে ফেলছে। তাই সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়েও শঙ্কা আছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বেল্লাল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, হুমায়ুন কবীর দলের বিদ্রোহী প্রার্থী। কয়েকদিন আগে তিনি নৌকা প্রতীককে সমর্থন জানান। কিন্তু ফের নিজের প্রচারণা চালাচ্ছেন যা খুবই দুঃখজনক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *