ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০২৪, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
২০ হাজার টাকার মধ্যে মিলছে এসি, ঝুঁকছেন ক্রেতারা
উখিয়া নিউজ ডেস্ক :

প্রচণ্ড তাপদাহের যখন জনজীবন অতিষ্ঠ, তখন মানুষ বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স সরঞ্জামের মার্কেটে ছুটছে। দেশের বাজারে যখন এক টনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র (এসি) ৬০ হাজার এবং দেড় টনের এসি ৭০ হাজার টাকা ছাড়িয়েছে তখন মানুষ ঝুঁকছে রিকন্ডিশন এসির দিকে। বারিধারা, যাত্রাবাড়ি, তেজগাঁওয়ের বিভিন্ন দোকানে ঘুরছেন তারা।

উত্তরা থেকে যাত্রাবাড়ি মেসার্স আব্দুর রহিম ইলেক্ট্রনিক্সে এসেছেন রবিউল ইসলাম। বেসরকারি চাকুরি করেন তিনি। তিনি জানালেন: পরিবারের জন্য এসি কিনতে এক দোকান থেকে আরেক দোকান ঘুরছেন। শুরুতে নতুন এসির দোকানে গিয়েছিলেন। ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা দাম হওয়ায় এখন তার নজর রিকন্ডিশন এসির দিকে। তিনি জানাচ্ছেন, রিকন্ডিশন এসির দোকানগুলোতেও ভালো মানের এসি আছে। ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এসকল এসি কেনা সম্ভব।

তেজগাঁওয়ের এসি বিক্রেতা কবির হোসেন জানালেন: সারা বছর তারা বাসাবাড়ি-অফিসে এসি ওয়াশ ও মেরামতে কাজ করেন। তবে এখন বিক্রির কাজটাই বেশি করছেন। সারা বছর রিকন্ডিশন এসির চাহিদা তেমন একটা না থাকলেও এপ্রিল, মে, জুন এই তিন মাসে তারা রিকন্ডিশন এসি সব থেকে বেশি বিক্রি করে থাকেন। এসকল এসি তারা অফিস-বাসা-রেস্টুরেন্ট এবং অ্যাম্বাসীগুলো থেকে সংগ্রহ করে থাকেন বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানালেন তিনি।

দেশে বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের এক থেকে পাঁচ টনের এসি পাওয়া যাচ্ছে রিকন্ডিশন এসকল এসির দোকানগুলোতে। যার দাম শুরু হয় ১৬ থেকে ২০ হাজার টাকা থেকে।

কবির হোসেন জানালেন: দেড় টনের ‘গ্রি’ এসি তারা বিক্রি করছেন ২৮ হাজার টাকায়। দুই টনের ‘বাটারফ্লাই’ এসি ২৮ থেকে ৩০ হাজার টাকায়। একটানের ‘মিনিস্টার’ এসি বিক্রি করছে ১৬ হাজার টাকায়। ‘হায়ার’ দেড়টনের ইনভাটর এসি বিক্রি করছি ২৮ হাজার টাকায়। মার্কেটে যে এসিগুলার দাম ৬০ থেকে ১ লাখ টাকার মধ্যে আছে, সেগুলো আমরা তিন ভাগের একভাগ দামে বিক্রি করছি।

শুধু বাসাবাড়ি নয় অফিস-রেস্টুরেন্টের জন্য রিকন্ডিশন এসি ক্রেতারা নিয়ে থাকেন বলে আমাদের জানিয়েছেন তারা। তবে বাসাবাড়িতে ব্যবহারে জন্য এক থেকে দেড় টনের এসির চাহিদা বেশি বলে জানাচ্ছেন বিক্রেতারা।

ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে এসব এসি বিক্রিতে বিক্রয়োত্তর সেবার ব্যবস্থাও রাখছেন বিক্রেতারা। তারা বলছেন: আমরা এসি বিক্রির পর ৬ মাস থেকে ১ বছর পর্যন্ত বিক্রয়ত্তোর সেবার ব্যবস্থা রেখেছি। তারপরও কোন এসিতে কি ধরণের সমস্যা ছিল, আমরা রিপেয়ার করেছি সেগুলো ক্রেতাদের জানিয়ে দেই আমরা। এসির মতো ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী থেকে যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় কোন দুর্ঘটনা। তাই রিকন্ডিশন এসি ক্রয়ের  ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *