ঢাকা, শুক্রবার ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
শাহজাহান চৌধুরীর পরিবার উন্নয়ন হাইজ্যাক করতে চায়
সরওয়ার আলম শাহীন :

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের উখিয়া বাজারের দুর্গা মন্দিরে হিন্দু সম্প্রদায় কর্তৃক আয়োজিত নৌকা মার্কার সমর্থনে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেছেন,দীর্ঘ গত ৪০ বছর রাজাপালং ইউনিয়নের মানুষকে ঐ শাহজাহান চৌধুরী পরিবার শাসনের নামে শোষণ করেছে। তাদের উন্নয়ন করার অনেক সুযোগ ছিল, কিন্তু তারা উন্নয়ন করেনি, নিজেদের পকেট ভারি করেছে। এখন তারা আবার উন্নয়ন হাইজ্যাক করতে চায়।

উখিয়া বাজার  দুর্গা মন্দির প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত জনসভায় একাংশ

এডভোকেট শাহ জালাল চৌধুরী নাকি উন্নয়ন চোখে দেখেন না। ওনার বাড়ির রাস্তাটা কে করেছে একটু চোখ বন্ধ করে দেখুন। বর্তমান সরকারের আমলেই আপনার বাড়ির রাস্তাটা হয়েছে। আপনি নাকি আবার উন্নয়ন চোখে দেখেন না। বিভিন্ন জনসভায় বক্তব্য বলে বেড়াচ্ছেন, আপনাদের আমলে এসব হয়েছে। আসলে তারাতো নিজেরা উন্নয়ন করতে শিখেনি। তাই বর্তমান সরকারের উন্নয়ন হাইজ্যাক করতে চায়। ভাঁওতাবাজির দিন শেষ, মিথ্যা কথা বলে গুজব ছড়িয়ে ভাঁওতাবাজি করে আর ভোট নেওয়া যাবে না। মানুষ এখন অনেক সচেতন। তারা উন্নয়নে বিশ্বাস করে। শাহজাহান চৌধুরী পরিবার ঘরের মেয়েদের বাইরে বের করে দিয়েছে ভোট চাওয়ার জন্য, তারা নাকি আবার ইসলামের ধারক-বাহক। আমরাতো কোনদিন বাড়ির মেয়েদের ভোট চাওয়ার জন্য ঘরের বাইরে বের হতে দেয়নি।

৭ নভেম্বর রাতে অনুষ্ঠিত নৌকা প্রতিকের উক্ত নির্বাচনী জনসভায় সভাপতিত্ব করেন উখিয়া বাজার দুর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি বাবু মৃদুল আইচ।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজুল হক রিয়াজ, উখিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ফরিদুল আলম কন্ট্রাকটর, উখিয়া ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি একরামুল হক, বাবু মাস্টার মুকুন্দ দাস, এডভোকেট রবীন্দ্র দাস রবি, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাজল সেন, ৬ ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী যথাক্রমে আব্দুল হক, মোস্তাক আহমদ, শাহজাহান মিয়া, মহিলা মেম্বার পদপ্রার্থী খুরশিদা বেগম, আনোয়ারা বেগম। উপস্থিত ছিলেন হাজী জাফর আলম,কাজী বাচ্চু, সাবেক সেনাসদস্য আনিসুল ইসলাম তৈয়ব প্রমূখ।
জনসভাটি সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন সাংবাদিক রতন কান্তি দে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *