ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০২৪, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিজস্ব মুদ্রার ব্যবহার রাষ্ট্রের জন্য হুমকি
ডেস্ক রিপোর্ট ::

একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশের অভ্যন্তরে মিয়ানমারের নিষিদ্ধ সংগঠন আরসা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তাদের নিজস্ব মুদ্রা ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়টি উদ্বেগজনক বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ ন্যাপ।

দলটির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব গোলাম মোস্তফা বলেন, বাংলাদেশের মাটিতে অন্য কোনো দেশের মুদ্রা চালু করা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। আশ্রিত রোহিঙ্গারা এ রাষ্ট্রদ্রোহিতা করার দুঃসাহস পায় কী করে?

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে তারা এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, একসঙ্গে এত সংখ্যক বাস্তুচ্যুত মানুষকে আশ্রয় দেওয়ার ঘটনা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। সীমিত সম্পদ ও অতি অপ্রতুল বাসযোগ্য ভূখণ্ড সত্ত্বেও মানবতার প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ায়। সেই রোহিঙ্গারা এখন অকৃতজ্ঞের মতো আচরণ করছে। নিজস্ব মুদ্রা চালুর মতো ধৃষ্টতা দেখাচ্ছে। রোহিঙ্গারা আক্ষরিক অর্থেই বাংলাদেশের জন্য নানা ক্ষতিকর কাজে লিপ্ত হয়ে অকৃতজ্ঞের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মুদ্রা প্রচলনের বিষয়টি বাংলাদেশের জন্য হুমকি বলে দাবি করে ন্যাপের শীর্ষ এই দুই নেতা বলেন, সাধারণত কোনো দেশ প্রতিষ্ঠা লাভের পর নিজের মুদ্রা চালু করে। একটি জঙ্গি সংগঠন কেন মুদ্রা প্রচলন করল? বিষয়টি সন্দেহজনক। বাংলাদেশ সরকারের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নেওয়া উচিত। একই সঙ্গে মুদ্রা প্রচলনের সাথে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *