ঢাকা, শুক্রবার ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন
রামুর গহিন পাহাড়ে অস্ত্রের কারখানার সন্ধান
উখিয়া নিউজ ডেস্ক :

কক্সবাজারের রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নে গহিন পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। বাহিনী জানিয়েছে, তারা সেখানে অভিযান চালিয়ে দেশি-বিদেশি অস্ত্র এবং অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ ৪ কারিগরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কারখানার মালিক ও প্রধান কারিগর পালিয়ে গেছে।

ওই ইউনিয়নের ছগিরাকাটা তুলাতলী পাহাড়ে মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টা থেকে বুধবার সকাল ৭টা পর্যন্ত ১৬ ঘণ্টার অভিযান চালায় র‍্যাব।

গ্রেপ্তাররা হলেন, অস্ত্র তৈরির কারিগর জাফর আলম, লাল মিয়া, মাঈন উদ্দিন ও শাহাব উদ্দিন। কারখানা থেকে জব্দ হওয়া সরঞ্জামের মধ্যে আছে দেশীয় ১০টি বন্দুক, ১০টি রাইফেলের গুলি, ১২টি কার্তুজ এবং অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন ধরনের বিপুল সরঞ্জাম।

র‍্যাব-১৫ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এইচএম সাজ্জাদ হোসেন জানান, সংঘবদ্ধ চক্রটি গহীন পাহাড়ে কারখানা গড়ে দীর্ঘ দিন ধরে অস্ত্র তৈরি করে আসছিল। মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় অভিযান শুরু করে কারখানার সন্ধান পাওয়া যায় বুধবার ভোর ৫টায়।

এই র‍্যাব কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘কারখানা অস্ত্র তৈরিরি দুই কারিগরকে আটক করতে সক্ষম হই। পরে তাদের তথ্যের ভিত্তিতে নিজেদের বসতঘর থেকে আরও দুই কারিগরকে আটক করা হয়। তারা প্রাথমিক স্বীকারোক্তিতে জানিয়েছে, দীর্ঘ দিন ধরে পাহাড়ে কারাখান গড়ে অস্ত্র তৈরি করে অপরাধীদের কাছে বিক্রি করে আসছিল। এলাকাটি দুর্গম পাহাড়ি হওয়ায় তাদের অপকর্ম আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারির বাইরে ছিল।’

তিনি আরও বলেন, ‘আটককৃতরা সন্ধান পাওয়া কারখানাটির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকা আরও কয়েকজনের ব্যাপারে তথ্য দিয়েছে। এ ছাড়াও গহীন এ পাহাড়ি এলাকায় আরও কয়েকটি অস্ত্র তৈরির কারখানা থাকার তথ্যও রয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে রামু থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *