ঢাকা, রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪, ১২:১৯ পূর্বাহ্ন
পোল্যান্ড সীমান্তের কাছে ঘাঁটিতে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ৩৫
ডেস্ক রিপোর্ট ::

পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য পোল্যান্ডের সীমান্তের কাছে যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইউক্রেনের একটি সামরিক ঘাঁটিতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জনে দাঁড়িয়েছে। রোববার ইউক্রেনের লভিভ অঞ্চলের ইয়াভোরিভ ঘাঁটিতে রাশিয়ার এই হামলায় আহত হয়েছেন আরও কয়েক ডজন।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী বলেছে, ইয়াভোরিভের সামরিক প্রশিক্ষণ ঘাঁটিতে আটটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে রাশিয়া। লভিভ অঞ্চলের গভর্নর বলেছে, পশ্চিম ইউক্রেনের এই সামরিক ঘাঁটিতে হামলায় কমপক্ষে ৩৫ জন নিহত এবং ১৩৪ জন আহত হয়েছেন।

এক বিবৃতিতে লভিভের সামরিক প্রশাসন বলেছে, দখলদাররা আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষা ও নিরাপত্তা কেন্দ্রে বিমান হামলা চালিয়েছে। প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, রুশ সামরিক বাহিনী ৮টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে।

আক্রান্ত সামরিক প্রশিক্ষণ স্থাপনাটি ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলের সবচেয়ে বড় এবং ঐতিহ্যগতভাবে ন্যাটোর সাথে যৌথ মহড়ার স্থান; যা পোল্যান্ড সীমান্ত থেকে ২৫ কিলোমিটারের কম দূরত্বে অবস্থিত।

তবে ন্যাটোর সদস্য পোল্যান্ড সীমান্তের কাছে ইউক্রেনের সামরিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্য করেনি রাশিয়া। রোববার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের ব্রিফিংয়ে এ ধরনের হামলার কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সের একজন প্রতিনিধি সাইরেন বাজিয়ে অন্তত ১৯টি অ্যাম্বুলেন্সকে ইয়াভোরিভের দিকে যেতে দেখেছেন। ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ওই এলাকার আকাশে ব্যাপক কালো ধোঁয়া উড়তে দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেকসি রেজনিকোভ বলেছেন, লভিভের কাছে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষা ও নিরাপত্তা কেন্দ্রে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। বিদেশি প্রশিক্ষকরা সেখানে কাজ করতেন। এই হামলার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ন্যাটোর প্রতিক্রিয়াও জানা যায়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *