ঢাকা, রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন
পা অচল, হাতে ভর দিয়ে ভোট দিলেন লুৎফর
ডেস্ক রিপোর্ট ::

খুব ভালো ভোট হচ্ছে। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছি। পরিবেশ ও অনেক ভালো।

রোববার সকাল ৮টায় নির্বাচন শুরুর পর কালীগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে হাতে ভর দিয়ে ভোট দিয়ে এমনই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন প্রতিবন্ধী লুৎফর রহমান।

লুৎফর রহমান উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামের রফি জোয়ার্দারের ছেলে।

লুৎফর রহমান জানান, খুব শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিয়েছেন। প্রতিবন্ধী হওয়ায় লাইনে দাঁড়াতে হয়নি। তিনি প্রতিবন্ধী ভাতাও পান। স্ত্রী ও এক মেয়ে রয়েছে। বাড়িতে ছোট একটি দোকান আছে। সেখান থেকে যা আয় হয়, সেটি দিয়েই চলে সংসার।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ১১টি ও কোটচাঁদপুর উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়; একটানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

নিয়ামতপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এই কেন্দ্রের মোট ভোটার ৩০৫৮ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

জেলা নির্বাচন অফিস জানায়, জেলার দুটি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে পুলিশ ১ হাজার ৫১ জন, আনসার সদস্য ২ হাজার ৬৩৫ জন ও ১১ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে এক লাখ ৮৭ হাজার ৮২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯৫ হাজার ৩৭৪ জন এবং নারী ভোটার ৯২ হাজার ৪৫১ জন। ইউপি চেয়ারম্যান পদে ২৯ জন, পুরুষ সদস্য পদে ৩১৫ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। কালীগঞ্জ উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে ইতোমধ্যে তিনজন চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

এর মধ্যে ১নং সুন্দরপুর-দুর্গাপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের ওহিদুজ্জামান ওদু, ৭নং রায়গ্রাম ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের আলী হোসেন অপু ও ৯নং বারবাজার ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের আবুল কালাম আজাদ বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *