ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২১ পূর্বাহ্ন
জোর করে ভোট দিচ্ছেন’ আনসার সদস্যরা
ডেস্ক রিপোর্ট ::

টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার হাদিরা ইউনিয়নের সেনেরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নিজের ভোট দিতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন ভোটাররা। বেলা ১১টার দিকে দেখা গেছে বুথের মধ্যে ভোট দিচ্ছেন আনসার সদস্যরা।

ভোটার সরফুন নাহার সাথীর অভিযোগ, ‘আমি ভোট দিতে গেলে জোরপূর্বক ভোট দিচ্ছে নৌকার সমর্থক আনসার সদস্যরা। আমার ভোট যখন দিতে গেলাম তখন টিপ দিয়ে সব শেষ হলে যখন ভোট দিতে যাব তখন দেখি এক আনসার সদস্য আমার ভোট দিয়ে দিচ্ছে। পরে আমাকে ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

বয়োবৃদ্ধ আলহাজ্ব রমযান আলী অভিযোগ করে বলেন, ‘দিতে চায়ছিলাম ঘোড়া মার্কায় ভোট, কিন্তু ছাত্রলীগ নেতা হযরত আলী স্বপন জোরপূর্বক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দিছে।’

হাবিবুর রহমান নামের অপর এক ভোটার বলেন, ‘ভোট দিতে গিয়ে দেখি নৌকার এজেন্ট ও সমর্থন করা আনসার সদস্যরা আমার ভোট দিয়ে দিছে। পরে ভোটকেন্দ্র থেকে আমাকে জোর করে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার হাদিরা ইউনিয়নের সেনেরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নিজের ভোট দিতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন ভোটাররা। বেলা ১১টার দিকে দেখা গেছে বুথের মধ্যে ভোট দিচ্ছেন আনসার সদস্যরা।

ভোটার সরফুন নাহার সাথীর অভিযোগ, ‘আমি ভোট দিতে গেলে জোরপূর্বক ভোট দিচ্ছে নৌকার সমর্থক আনসার সদস্যরা। আমার ভোট যখন দিতে গেলাম তখন টিপ দিয়ে সব শেষ হলে যখন ভোট দিতে যাব তখন দেখি এক আনসার সদস্য আমার ভোট দিয়ে দিচ্ছে। পরে আমাকে ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

বয়োবৃদ্ধ আলহাজ্ব রমযান আলী অভিযোগ করে বলেন, ‘দিতে চায়ছিলাম ঘোড়া মার্কায় ভোট, কিন্তু ছাত্রলীগ নেতা হযরত আলী স্বপন জোরপূর্বক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দিছে।’

হাবিবুর রহমান নামের অপর এক ভোটার বলেন, ‘ভোট দিতে গিয়ে দেখি নৌকার এজেন্ট ও সমর্থন করা আনসার সদস্যরা আমার ভোট দিয়ে দিছে। পরে ভোটকেন্দ্র থেকে আমাকে জোর করে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

 

অভিযুক্ত আনসার সদস্য কবির মিয়া বলেন, ‘ইভিএমে ভোট যারা দিতে পারতেছে না তাদের সহযোগিতা করা হচ্ছে। আমি কারো ভোট দিচ্ছি না। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ।’

সেনেরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা শহিদুর রহমান বলেন, কোনো প্রকার জোরপূর্বক ভোট দেওয়া হচ্ছে না। যারা বোঝে না তাদের সহযোগিতা করা হচ্ছে।

সোমবার ৬ষ্ঠ ধাপে ইভিএমে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে ৩ প্লাটুন বিজিবিসহ পর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। উপজেলার মির্জাপুর, আলমনগর, হাদিরা, নগদাশিমলা এবং ধোপাকান্দি এই ৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সাধারণ সদস্য পদে ১৫৪ জন এবং সংরক্ষিত পদে ৫১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *