ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০২৪, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন
চিকিৎসার খরচ যোগাতে শিশুসন্তানকে বিক্রি করলেন বাবা
ডেস্ক রিপোর্ট ::

চাঁদপুরে নিজের চিকিৎসার খরচ যোগাতে ও ঋণের টাকা পরিশোধ করতে এক বছরের কন্যাসন্তানকে বিক্রি করে দিলেন এক বাবা। গত রোববার (২০ মার্চ) চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ঘটে এমন ঘটনা। পরে সোমবার বিষয়টি জানাজানি হলে আলোচনা শুরু হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দুই কন্যাসন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে বশির মজুমদারের সংসার। একটি সড়ক দুর্ঘটনায় পা ভেঙে যায় তার। পরে পায়ে রড লাগানো হয়। আর্থিক সংকটে সেই রড খুলতে পারছেন না তিনি। পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যক্তি ও এনজিও থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকার ঋণ নিয়েছেন। একদিকে ঋণগ্রস্ত, অন্য দিকে অসুস্থ। সবশেষে চিকিৎসা খরচ ও ঋণের টাকা যোগাতে একবছর বয়সী কন্যাশিশু মিনাকে বিক্রি করে দিয়েছেন তিনি।

ঘটনাটি হাজীগঞ্জ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড খাটরা-বিলওয়াই মজুমদার বাড়িতে ঘটে। বিক্রিত শিশুটি ওই বাড়ির বশির মজুমদারের ছোট মেয়ে জুবেদা আক্তার মিনা।

শিশুর মা আছমা বেগম জানান, রোববার চাঁদপুরে কোর্ট এফিডেভিটের মাধ্যমে শিশুকে বিক্রি করেন। ঋণগ্রস্ত থাকায় শিশুকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন তারা। এছাড়া তার স্বামী বশির মজুমদার অসুস্থ ও বেকার। তবে এখন ওই শিশু সন্তানকে ফেরত চান মা আছমা বেগম।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে শিশুর বাবা বশির মজুমদার এড়িয়ে যান। তবে তার ভাই জানান, ধেররা আবেদীয়া মোজাদ্দেদিয়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষক কাজী হারুনুর রশিদের মাধ্যমে ঢাকায় এক নিসন্তান পরিবারের কাছে ওই শিশুকে বিক্রি করা হয়।

হাজীগঞ্জ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড ওয়ার্ড কাউন্সিলর মহসীন ফারুক বাদল ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, কোনো শিশুসন্তান দত্তক দেওয়া হলে পৌরসভাকে অবহিত করে একটি ফরম পূরণ করতে হয়। কিন্ত পরিবারটি তা করেনি।

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জুবায়ের সৈয়দ বলেন, আমরা বিষয়টি জেনেছি। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *