ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০২৪, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন
গাড়ির সিলিন্ডারে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা যাচ্ছে উত্তরাঞ্চলে
ডেস্ক রিপোর্ট ::

গাড়ির সিলিন্ডারে করে কক্সবাজার থেকে নীলফামারীতে ইয়াবা পাচারকালে একজনকে গ্রেফতার করেছে অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)। এসময় ওই গাড়ির সিলিন্ডারে ৯১ হাজার ৮৫ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে জব্দ করা এটি ইয়াবার অন্যতম বড় চালান বলে জানিয়েছে এটিইউ।

শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে নীলফামারী সদর থানার বড় বাজার ট্রাফিক মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইমরান হোসেনকে (৪২) গ্রেফতার করা হয়। তিনি সিলেটের গোলাপগঞ্জের দাড়িপাতন গ্রামের রফিক উদ্দিনের ছেলে।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস) মোহাম্মদ আসলাম খান এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে এটিইউ জানতে পারে রাতে নীলফামারীতে মাদকের চোরাচালান হবে। এ তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ইমরানকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় জব্দ করা হয় মাদকপাচারে ব্যবহৃত গাড়ি ও সাত হাজার ২০০ টাকা।

ইমরান গত ২১ ডিসেম্বর কক্সবাজারের টেকনাফের সাবরাং এলাকার জুবায়ের জুয়েলের কাছ থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করেন বলে জানান এটিইউয়ের এই কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, জোবায়ের জুয়েল সাবরাং এলাকার চিহ্নিত মাদক সম্রাট। নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা হয়ে নীলফামারী জেলাসহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় তার ইয়াবাপাচারের নেটওয়ার্ক রয়েছে।

বগুড়া সদর থানার ফুলবাড়ি এলাকার বিপুল ও নীলফামারীর সুজন নামে দুইজনসহ তাদের সহযোগীরা মিলে বগুড়াসহ দেশের উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে ইয়াবাপাচারের সঙ্গে যুক্ত বলেও জানান মোহাম্মদ আসলাম খান।

তিনি বলেন, তাদের নির্দেশে গ্রেফতার ইমরান ইয়াবার চালান কক্সবাজারের জুবায়ের জুয়েলের থেকে এনে সরবরাহ করতেন। এবারের চালানটি নিয়ে শুক্রবারই কক্সবাজার থেকে রওনা দেন তিনি।

এটিইউ সূত্রে জানা গেছে, জুবায়ের জুয়েল গাড়ির গ্যাস সিলিন্ডারের ভেতরে ইয়াবার প্যাকেট লুকিয়ে পাচার করেন। এর আগেও তিনি এভাবে ইয়াবাপাচার করেছেন।

কক্সবাজার জেলার টেকনাফের সাবরাংয়ের জুবায়ের জুয়েল, বগুড়ার ফুলবাড়ি এলাকার মো. বিপুল ও নীলফামারীর সদর থানার সুজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী এবং একাধিক মাদক মামলার আসামি বলে জানায় এটিইউ।

দীর্ঘদিন ধরে তারা টেকনাফ থেকে ইয়াবা এনে নীলফামারী, বগুড়া ও উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে পাচার করে আসছিলেন।

গ্রেফতার ইমরান হোসেন ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নীলফামারী সদর থানায় মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *