ঢাকা, বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
করোনার নতুন ধরন : এশিয়া-ইউরোপের দেশে দেশে সতর্কতা
ডেস্ক রিপোর্ট ::

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের নতুন ধরন শনাক্তের পর বাড়তি সতর্কতা জারি এবং ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা কঠোর করার পদক্ষেপ নিয়েছে এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ। আশঙ্কা করা হচ্ছে, কয়েকবার রূপান্তরের মধ্য দিয়ে যাওয়া ভাইরাসটির এ ধরন টিকা প্রতিরোধী। অর্থাৎ ভাইরাসের এ ধরনের ক্ষেত্রে করোনা টিকা কার্যকর নাও হতে পারে।

শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, যুক্তরাজ্য ইতোমধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা ও তার আশপাশের দেশগুলো থেকে ফ্লাইট আগমনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। পাশাপাশি, যে ব্রিটিশ যাত্রীরা গত কয়েকদিনের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা বা তার পার্শ্ববর্তী কোনো দেশ থেকে যুক্তরাজ্যে ফিরেছেন, তাদের কোয়ারেন্টাইনে যেতে বলেছে দেশটির সরকার।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) মূল প্রশাসনিক শাখা ইউরোপীয় কমিশনের (ইসি) প্রধান নির্বাহী উরসুলা ভন ডারলেনও এক আদেশে ইইউভুক্ত সব দেশে দক্ষিণ আফ্রিকা ও তার প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আসা সব ফ্লাইটে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

বৃহস্পতিবার দক্ষিন আফ্রিকায় শনাক্ত হয়েছে বি.১.১৫২৯ নামে করোনাভাইরাসের একটি নতুন রূপান্তরিত ধরন। ইতোমধ্যে ২২ জন ধরনটিতে আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছে দক্ষিণ আফ্রিকার সরকারি স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাজ্যের সরকারি স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নতুন শনাক্ত হওয়া রূপান্তরিত ধরনটির স্পাইক প্রোটিন মূল করোনাভাইরাসের চেয়ে অনেকটাই ভিন্ন। ফলে, মূল করোনাভাইরাস থেকে এর ধ্বংসাত্মক ক্ষমতা অনেক বেশি- এমন শঙ্কা উড়িয়ে দেওয়ার উপায় নেই।

দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়াও হংকং ও বতসোয়ানায় করোনার নতুন এই ধরনে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেছে স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *