ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০২৪, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন
উপজেলা পরিষদের স্মৃতিস্তম্ভে বসে মাদক সেবন!
ডেস্ক রিপোর্ট ::

চলছে ভাষার মাস ফেব্রুয়ারি। বাঙালির কাছে এই মাস দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হওয়ার মাস। অথচ এই মাসেই স্মৃতিস্তম্ভে প্রকাশ্যে মাদক সেবন করতে দেখা গেছে এক যুবককে। তাকে বাধা দেওয়ার কোনো উদ্যোগ নেই কারো।

সোমবার দুপুরে এমনই একটি দৃশ্য চোখে পড়ে কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বরের স্মৃতিস্তম্ভে।

দেখা যায়, কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বরের প্রবেশ পথে শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে একটি চট পেতে বসে আছে এক যুবক। একটু লক্ষ্য করে দেখা গেলো মুখে পলিথিন নিয়ে কী একটা যেন টানছে। কাছে এগিয়ে গেলেই দেখা যায় পলিথিনের মধ্যে ডেন্ডি মাদক সেবন করছে সে। ক্যামেরা দেখে পলিথিন লুকিয়ে ফেললো। এ সময় কিছুটা উত্তেজিত হয়ে পড়ে সে।

সে জানায় তার নাম খোকন আলী দাস। বাড়ি কোটচাঁদপুর উপজেলার ছলেমানপুর দাসপাড়ায়।

খোকন একপর্যায়ে বিষণ্ন হয়ে বলেন, কী বলবো ভাই, আমার মনে অনেক কষ্ট। যান আপনারা যান, আমার কিছুই বলার নেই। আমি এখানে মাঝেমধ্যে এসে বসে থাকি। আমার মা মরে গেছে, বাবাও নেই। ৮ বছর পরিবারের সঙ্গে রাগারাগি। বাড়ি যাই না। প্রায় দুই বছর আগে নলকূপের কাজ করতাম খুলনার স্টেশন এলাকায়। সেখানে যাদের সঙ্গে কাজ করতাম তারা দুই বছরের বেতন দেয়নি। উল্টো আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করিয়েছে। এরপর থেকে এখানে চলে এসেছি। মনে অনেক কষ্ট ভাই। এগুলো খেলে কষ্ট কিছুটা হালকা লাগে।

তিনি আরো জানান, উপজেলা চত্বরে প্রায় সময়ই এসে মাদক সেবন করেন তিনি। তবে কখনো কেউ কিছু বলেনি তাকে।

উপজেলা চত্বরের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন পথচারী সাইমুন নামের এক ব্যক্তি। তিনি জানান, উপজেলা চত্বরের স্মৃতিস্তম্ভে বসে মাঝে মধ্যেই মাদক সেবন করতে দেখা যায়। তবে এ বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের নজর নেই।

মোহাব্বত হোসেন নামের অপর এক ব্যক্তি জানান, স্মৃতিস্তম্ভে মাদক সেবন খুবই দুঃখজনক। এটা আমাদের অনেক কষ্ট দেয়। যেখানে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় সেখানে এমন পরিবেশ মেনে নেওয়া যায় না। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানো দরকার ছিল।

বিষয়টি নিয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া জেরিন জানান, এটি খুবই দুঃখজনক। আমি বিষয়টি দেখছি। মাঝে মধ্যে না, হয়তো আজ কোনো কারণে ওই ব্যক্তি স্মৃতিস্তম্ভে এসে মাদক সেবন করছে। ভবিষ্যতে যেন এমনটি আর না হয় সেটি আমরা কঠোর নজরদারিতে রাখছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *