ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫৭ পূর্বাহ্ন
উখিয়ার আলোচিত হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামী নয়ন গ্রেপ্তার
নিজস্ব প্রতিবেদক ::

অবশেষে কক্সবাজারের উখিয়ার মরিচ্যা বাজারের চাঞ্চল্যকর জসিম হত্যা মামলার প্রধান অভিযুক্ত মোহাম্মদ নয়ন (২৮)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫ এর একটি টিম।

সোমবার (১৪মার্চ) বিকেলে চারটার দিকে জালিয়াপালং এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। নয়ন উপজেলার হলদিয়া পালং রুমখা ক্লাসেপাড়া এলাকার বদিউল আলমের ছেলে।

র‌্যাব জানিয়েছে, ব্যবসায়ী জসিম খুন হওয়ার পর থেকে নয়ন আত্মগোপনে ছিল। সুনির্দ্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জানা যায়, গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১২টার দিকে জসিম মরিচ্যা বাজার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে বাসায় ফেরার পথে নিখোঁজ হন। পরিবারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়ে সন্ধান না পেয়ে উখিয়া থানায় নিখোঁজ সংক্রান্ত সাধারন ডায়েরী করা হয়। পরে নয়নকে প্রধান আসামী করে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়। যার নং ৬৯/২০২২। নিখোঁজের প্রায় ছয়দিন পরে ১৫ ফেব্রুয়ারি নিজ ব্যবসা প্রতিষ্টানের গোডাউন থেকে তার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাস্তা দিয়ে চলাচলের সময় জসিমের গোডাউন হতে পঁচা গন্ধ পেয়ে উখিয়া থানায় বিষয়টি অভিহিত করলে উখিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গোডাউনের তালা ভেঙ্গে জসিম উদ্দিনের গলিত লাশ উদ্ধার করে। উক্ত ঘটনার পর থেকে প্রধান আসামী মোহাম্মদ নয়ন (২৮) গ্রেফতার এড়ানোর জন্য আত্মগোপনে চলে যায়।

র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, ব্যবসায়ী জসিমের গলিত লাশ উদ্ধারের পর থেকে হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী নয়নকে গ্রেফতার করতে গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে র‌্যাব। আসামী অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে গ্রেফতার এড়াতে উদ্দেশ্যে বারবার তার অবস্থান পরিবর্তন করে। সর্বশেষ সুনির্দ্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার জালিয়াপালং এলাকায় থেকে আত্মগোপন থাকা অবস্থায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নয়ন স্বীকার করেছে জসিমের সাথে তার ব্যবসায়িক সম্পর্কের টানাপোড়ন, আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়ে ঝগড়া হয়। এমনকি হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনাও ঘটে ছিল।

পরবর্তী আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের সহকারী পরিচালক (ল এন্ড মিডিয়া) মো: বিল্লাল উদ্দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *