ঢাকা, শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন
কিউইদের ‘কুৎসিত ও সবচেয়ে বাজে’ হার উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ!
স্পোটস ডেস্ক ::

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ড। অন্যদিকে বাংলাদেশ গত বছর এই প্রতিযোগিতায় কোনো জয়ই দেখেনি। সেই বাংলাদেশই নিউজিল্যান্ডকে উড়িয়ে দিলো। মুমিনুলদের কাছে এমন হারকে ‘কুৎসিত’ বলেছে নিউজিল্যান্ডের গণমাধ্যম। কিউইদের টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে পাঁচ হারের তালিকায় এটিকে স্থান দিয়েছেন দেশটির শীর্ষ সংবাদমাধ্যম ‘স্টাফ ডটকম ডট এনজেড’-এর প্রতিবেদক ব্রেন্ডন ইগান।

বাংলাদেশ চমক
নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন না থাকার পরেও কিউই মিডিয়া মনে করেছিল, বাংলাদেশকে সহজেই হারাবে টম ল্যাথামের দল। কারণ ঐতিহ্যগতভাবেই নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন বাংলাদেশের প্রতিকূলে। সেখানে খেলতে গিয়ে ব্যাট-বল এমনকি ফিল্ডিংয়ের ক্ষেত্রে ধুঁকতে দেখা গেছে টাইগারদের। তারাই কিনা দাপট দেখিয়ে জিতলো।

বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের মাত্র ষষ্ঠ টেস্ট জয় এটি। সাংবাদিক ইগানের কাছে যা টেস্ট ইতিহাসেরই সেরা অঘটনগুলোর একটি।

কেপ টাউন বিপর্যয়
২০১৩তে কেপ টাউন টেস্টের প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাত্র ৪৫ রানে গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। টেস্টে যা তাদের তৃতীয় দলীয় সর্বনিম্ন। মাত্র ১৯.২ ওভার টেকে তাদের ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭৫ রান করলেও হার এড়াতে পারেনি কিউইরা। ম্যাচটি ইনিংস ও ২৭ রানে জেতে দক্ষিণ আফ্রিকা।

উইন্ডিজে পর্যদুস্ত
১৯৯৫-এ ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভ টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে রান বন্যায় ভাসায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জিমি অ্যাডামস, ব্রায়ান লারা ও জুনিয়র মারির শতকে ৬৬০ রানে ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারীরা। জবাবে ২১৬ ও ১২২ রানে গুটিয়ে এক ইনিংস এবং ৩২২ রানে হারে নিউজিল্যান্ড।

২৬ রানের লজ্জা
১৯৫৫ সালে অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ২৬ রানে গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। যা টেস্ট ইতিহাসেরই সর্বনিম্ন দলীয় ইনিংস। প্রথম ইনিংসে ২০০ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। জবাবে ইংল্যান্ড তোলে ২৪৬। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬ রানে অলআউট হয়ে এক ইনিংস ও ২০ রানে ম্যাচটি হেরে যায় নিউজিল্যান্ড।

লঙ্কান ছোবল
ক্রিকেট বিশ্বে তখন শ্রীলঙ্কা উদীয়মান দল। তাদের বিপক্ষেই ১৯৯৫ সালে নেপিয়ার টেস্টে ২৪১ রানের বড় ব্যবধানে হেরে যায় নিউজিল্যান্ড। যেটি ছিল লঙ্কানদের প্রথম ওভারসিজ টেস্ট জয়। প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে ১৮৩ রানে গুটিয়ে দিয়ে নিউজিল্যান্ডও আলআউট হয়ে যায় ১০৯ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৫২ রানের বড় সংগ্রহ পায় লঙ্কানরা। জবাবে চামিন্ডা ভাসের বোলিং তোপে মাত্র ১৮৫ রানে থামে নিউজিল্যান্ড। ভাস একাই নেন ৫ উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *