ঢাকা, রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন
ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাকে প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘তোকে লাথি মারব’
ডেস্ক রিপোর্ট ::

বিতর্কিত মন্তব্য আর কল রেকর্ড ফাঁসের পর পদত্যাগ করার নির্দেশ পাওয়া তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানের মুখ থেকে রেহাই পেতেন না মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও। কারণে-অকারণে করতেন অশ্রাব্য গালাগালি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রতিমন্ত্রীর দফতরের সাবেক এক কর্মকর্তা ঢাকা পোস্টকে বলেন, তার ব্যবহার অত্যন্ত খারাপ। গালি কাকে বলে, তার সঙ্গে কাজ না করলে বুঝবেন না। মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘তোকে লাথি মারব’।

অন্যএকটি ঘটনার ব্যাপারে ওই কর্মকর্তা বলেন, আরেকজনকে ফাইল দিয়ে মারার জন্য উদ্যত হন এবং বলেন, তোকে আজকে শেষ করে দেব।’

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, আল্লাহ সীমা লঙ্ঘন কারীদের পছন্দ করেন না। কিন্তু তিনি সীমা লঙ্ঘন করেছেন। এজন্যই তার এ পরিণতি হয়েছে বলেও মনে করেন ওই কর্মকর্তা।

একান্ত সচিব (পিএস) এবং সহকারী একান্ত সচিবের (এপিএস) দায়িত্ব থাকা কর্মকর্তাদেরও ছাড়তেন না তিনি। এসব কারণে দায়িত্বও ছেড়েছেন কয়েকজন কর্মকর্তা। কর্মচারীদের সঙ্গে গালাগালি করলেও ভয়ে মুখ খুলতেন না তারা।

এ বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এদিকে, বিতর্কিত মন্তব্য আর কল রেকর্ড ফাঁসের পর চারদিকে যখন সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখনই ঢাকা ছাড়েন প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান। সোমবার দুপুরে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়েন তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা ঢাকা পোস্টকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রতিমন্ত্রী চট্টগ্রামের উদ্দেশে দুপুরেই ঢাকা থেকে রওনা দিয়েছেন। সেখানে তার একজন বন্ধুর বাসায় ওঠার কথা। বর্তমানে তার ফোন বন্ধ রয়েছে। তাই তার সঠিক অবস্থান জানি না।

এদিকে, সোমবার সচিবালয়ে নিজ দফতরেও আসেননি প্রতিমন্ত্রী। এদিন বিকেল সাড়ে ৩টায় রাজধানীর তোপখানা রোডে অবস্থিত বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা থাকলেও সেখানেও আসেননি সরকারের এ প্রতিমন্ত্রী।

এদিকে, প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার রাতে তাকে পদত্যাগের এ নির্দেশ দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *